নিজের জ্ঞান সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি প্রতি মুহূর্ত আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে আপনি ও লিখুন। বিডি বন্ধন ব্লগে রেজিস্ট্রেশন সবার জন্য উন্মুক্ত।

পার্বতীর বিরহ কথা

 

 

 

 

 

নন্দ দুলাল রায় : ১০/১১/১৭

দেবদাস,কী-বুঝবে তুমি, নারীর বেদন!
তুমি তো পুরুষ-মুখ ফোটে বলতে পারো,
ইচ্ছে হলে প্রতিবাদের ঝড় তুলতে পারো-
ঐ নিষ্ঠুর সমাজ সংসারের বিরুদ্ধে।
কিন্তু, আমি যে পুরুষ শ্বাসিত সমাজের
এক নিরীহ গ্রাম্য অবলা সামান্য নারী।
শুধু একবার ভেবে দেখো তো
কী সুখে বাঁচার নামে তোমায় ছাড়া
তোমার ভালেবাসার পরশ বিনা
কী কষ্টে-আমি জীবন্ত আছি মরে!
কী কষ্টে দিবস-নিশি আমি করি যাপন
এ বুকে বিরহ অনল কতটা দহন!
শুধু জানে আমার মন-
আর জানে শুধু বিধাতা মহাজন।
তুমি দূর হতে শুনছো আর কত
আমার মনের ভেডর বিরহ যত!
সে কী তোমার অজানা?
শুধু জীবন-মৃত্যুর সন্নিক্ষণে দাঁড়ায়ে
অন্তরে আদৌ আমি তোমার প্রতিক্ষায়।
কী করে বুঝবে পাষাণ পরুষ পুরুষ মন
কতটা কষ্ট আছে যাতনার দহন গাঁথা
আমার এ অন্তরে কতটা বিরহ ব্যথা ?
তুমি তো অবুঝ নও, সবই বুঝো,
কিছুই তোমার অজানা নয়।
আমার জন্মদাতা পিতা আর মাতা
আরও যাঁরা যত আছে আত্মীয় জন্মসূত্রে
তাঁরা দেখায় অধিকার আমার উপর
তাঁরা তো বুঝে না তোমার মত করে
আর জমিদার বাবু-সে তো মদ ভালোবাসে
সময় সময় আমার রূপে হয় পাগল।
আমি জানি, তুমিই ভালোবাসো একমাত্র
জনম জনম প্রেম বন্ধনে আবদ্ধ,
তুমি যে গুণমুগ্ধ পরম বন্ধু আমার।
দেবদাস, তবু তো তুমি পুরুষ
আমার মত অবলা নারী নও,
তুমি বলতে পারো স্ববিস্তর কষ্ট, ব্যথা
কী নিদারুণ অন্তর দহন যাতনায় আমি জ্বলি,
কতটা ব্যথা অন্তর জুড়ে ভস্বীভূত মন!
কেউ না বুঝলেও তোমার অজানা নয়।
কতটা ব্যথা বিচ্ছেদ সর্বক্ষণ তোমার লাগি
তোমার আসার আশে পথ চেয়ে-
আমার নয়ন জলে পথ আজ পিচ্ছিল
সে তো সবই তুমি জানো।
যদিও দিবস কাটে পথের দিক চেয়ে
রাত কাটে না- অসহ্য যন্ত্রণা,
এই বুকে পাথর চাপা দেয়া যাতনা
শুধুই বিরহ বিরহ আর বিরহ।
অবিরাম বিচ্ছেদ যাতণা সইব আর কত!
জীবন-মৃত্যুর সনে আমার টানাপোড়ন
ভারী বিরান লাগে সূর্য যখন বসে পাটে।
আমার দিবস-রজনী কাটে,
আমি জানি তোমার বিরহ কা’রে বলে।
আমার বিচ্ছেদে তোমার কতটা কষ্ট
কিচ্ছুটি আজ আমার অজানা নয়
বিরহ বেদনায় তুমি কতটা আহত তা
বুঝি আমার ভেতরের ব্যথা অনুভবে।
কিচ্ছুটি বলতে হয় না আমায়,
আমি জানি, নিঃস্ব হৃদয়টা আজ কী বলে,
স্বয়ং জ্বলছি নিরন্তর বিচ্ছেদ বিরহ অনলে
কেবলি মনে হয় কেনো আজও বেঁচে আছি
মরন কী আমায় ভয় পায়?
কেনো বা আমি আজি কষ্ট সইতে এখনও
বেঁচে শুধুই এ অবয়বে আছি?
সর্বস্ব হারায়েও যদি পেতাম সুখি হতাম!
তুমি হয়তো ভাবছো নানা কথা
তোমার বুকের পাঁজরে থাকা এই পার্বতী
পরের ঘরণী হয়ে আছে খুবই সুখে ভালো?
তবে বলছি তোমায় ক্ষমা করো,
আমি মিথ্যে বলব না, আমি ভালো নেই,
পার্বতীর রাজ্যে যে রাজা-দেবদাস নেই
সে মনোরাজ্য পার্বতীরা ভালো থাকে না।
তুমিই বলো-আমি কী ভালো থাকতে পারি?
তোমার বিচ্ছেদ স্মৃতির প্রতিটি পদচারণায়
সতত আমায় হৃদয় কুড়ে কুড়ে খায়।
না, তোমার সঙ ব্যতিরেকে সুখে থাকা
আমার এ জীবনে আর হলো না।
আমি আসছি আবার হবে পরিরম্ভ
এ জীবনে হয়তো নয়-পর জনমে।
মনেরেখো-এ পঁচা শরীরে হয়তো
আমি তোমার হতে পারিনি,
তবু অন্তরে আজও আমি শুধুই তোমার।
তাই বলছি-তুমি অপেক্ষা করো
আমি আসছি ফিরে-তোমার ঘরে।।।

Share Button

2 Comments

Add a Comment
  1. খুব ভাল লাগলো ধন্যবাদ।

    1. ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

BD BONDHON © 2015-2017 DMCA.com Protection Status Site Developed by- Nurbakta Ali. Ansari IT, Ulipur, Kurigram
error: থামুন, অনুমতি ছাড়া কপি করা যাবে না।।